‘আর্জেন্টিনা ফেভারিট নয়, তবে বিশ্বকাপ চাই’

29

ক্রীড়া এক্সপ্রেস:

শুরু হচ্ছে বিশ্ব ফুটবলের জমজমাট আসর রাশিয়া বিশ্বকাপ, চলতি বছরের জুনে অর্থাৎ আর ৭৯ দিন পরে । গ্রেটেস্ট শো অন দ্য আর্থ উপলক্ষে নিজেদের ঢেলে সাজানোর চেষ্টায় আছে দলগুলো । এর ব্যতিক্রম নয় আর্জেন্টিনাও । জাতীয় দলের হয়ে চারটি ফাইনাল খেললেও শিরোপার দেখা মেলেনি । রাশিয়া বিশ্বকাপ জিতে সে অপূর্ণতা ঘোঁচাতে মরিয়া লিওনেল মেসি। এদিকে প্রীতি ম্যাচ চলাকালীন আর্জেন্টিনা দলের বিভিন্ন দিক নিয়ে কথা বলেছেন দলটির সেরা তারকা লিওনেল মেসি ।

২০১৪ সালে ব্রাজিল বিশ্বকাপের ফাইনালে অতিরিক্ত সময়ে জার্মানির কাছে ১-০ গোলে হারে তারা । এরপর ২০১৫ ও ২০১৬ সালে দুইবার কোপা আমেরিকার ফাইনালে চিলির কাছে হার মানে দলটি। ২০০৭ সালের কোপা আমেরিকার ফাইনালেও উঠেছিল দুবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। ফক্স স্পোর্টসকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে বিশ্বকাপের স্মৃতিচারণ করে মেসি বলেন, এটা কঠিন ছিল । কারণ আমরা ট্রফি তুলে ধরতে পারিনি । বিশ্বকাপ ট্রফির পাশ দিয়ে যাওয়াটা ছিল খুবই কষ্টের ।

আর্জেন্টাইন ক্ষুদে জাদুকর বলেন, আমরা নিজেরা নিজেদের কাছে ঋণী। আমরা জনগণকে এখনো কিছুই দিতে পারিনি। তবে আমরা সর্বদাই সেরাটা দেয়ার চেষ্টা করছি। আমরা তিনটি ফাইনালে খেলেছি। কিন্তু একটিতেও জিততে পারিনি। হয়তো সৃষ্টিকর্তাই চাননি আমরা জিতি। আমাদের দলের অনেকেই হয়তো শেষবারের মতো বিশ্বকাপে খেলতে যাচ্ছি। এটা আমাদের শেষ সুযোগ এবং আগের তুলনায় বেশি প্রত্যাশা এখানে।রাশিয়া বিশ্বকাপে সুযোগ কাজে লাগানো প্রসঙ্গে মেসি বলেন, আমাদের অনেকেই হয়তো আর সুযোগ পাবো না। আপনাকে মনে করতে হবে এটাই শেষ বিশ্বকাপ এবং এখানকার সুযোগগুলো কাজে লাগাতে হবে। এরপর একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রজন্ম সরে যাবে এবং দলে নতুন খেলোয়াড়রা আসবে ।

আর্জেন্টিনার হয়ে বিশ্বকাপের স্বপ্ন দেখলেও দলটিকে ফেভারিট মানতে নারাজ মেসি। এ্র প্রসঙ্গে বার্সা সুপারস্টারের বক্তব্য, আর্জেন্টিনা প্রতিবারই এই মেজর টুর্নামেন্টের একটি উল্লেখযোগ্য প্রার্থী। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে বর্তমান পরিস্থিতি, খেলা এবং খেলার ধরনের কারণে সময় বিবেচনায় আমরা ফেভারিট দল নই। আমরা মনে হয় স্পেন, ব্রাজিল, জার্মানি এবং ফ্রান্স আমাদের চেয়ে অনেক ভালো দল।