দেবতাকে খুশি করতেই ১৪০ শিশুকে বলি দেয়া হয়েছিল এই স্থানে

109

দেবতাকে খুশি করতে একটা নয়, দুইটা নয়, তিনটা নয়— ১৪০টি শিশু বলি! শুধু তাই নয়, বলি দেয়া হয়েছে দুশ’র বেশি লামাকে (উট প্রজাতির গৃহপালিত পশু)। বৃষ্টি ও বন্যা প্রার্থনা করে দেবতার উদ্দেশে তাদেরকে বলি দেয়া হয়।মানব ইতিহাসে এটাকে সবচেয়ে বেশি শিশু বলির ঘটনা বলে মনে করা হচ্ছে। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ আমেরিকার পেরুতে। তবে ঘটনাটি আজকালের নয়।পেরুর উত্তরাঞ্চলীয় উপকূলীয় এলাকায় প্রাচীন চিম সভ্যতার কেন্দ্রস্থলের কাছাকাছি ত্রুজিলো শহরে এই বলির ঘটনা ঘটে আজ থেকে প্রায় ৫৫০ বছর আগে।২০১১ সালে সাড়ে ৩ হাজার বছরের পুরনো ওয়ানচাকিতো-লাস-ইয়ামাস নামে পরিচিত মন্দির খননের সময় ৪০টি শিশুর হাড়গোড় এবং ৭৪টি লামার দেহাবশেষ পাওয়া হয়। চূড়ান্ত হিসাব মেলে গত সপ্তাহে।

গবেষক দলের মতে, ৮ থেকে ১২ বছরের এসব শিশুকে কেটে ফেলার চিহ্ন, পাঁজর ও হাড় দেখে তাদের শনাক্ত করা হয়েছে। অনেকের পাঁজর নষ্ট হয়ে গেছে। তাদের শরীর থেকে হৃৎপিণ্ড কেটে আলাদা করা হয়।আন্দিজ পর্বতমালার দিকে মুখ করে এসব শিশু ও লামাকে কবর দেয়া হয়। খননের সময় পাওয়া বস্ত্রাদির কার্বন পরীক্ষা করে জানা গেছে, ঘটনাটি ১৪০০ থেকে ১৪৫০ সালের মধ্যে সংঘটিত হয়।গত বৃহস্পতিবার ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়।