বৈঠকের আগে জাপানে যুক্তরাষ্ট্রের রণতরী

56

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উনের শীর্ষ বৈঠকের স্থান ও সময় নির্ধারিত হয়েছে। কিন্তু এর আগেই জাপান উপকূলে রণতরী পাঠিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে নিরাপত্তা জোরদার করার অংশ হিসেবে মঙ্গলবার মার্কিন রণতরী ইউএসএস মিলিয়াস গাইডেড মিসাইল ডেস্ট্রয়ান জাপানের ইউকোসুকা নৌঘাঁটিতে এসে পৌঁছায়।

রণতরীটি ইউকোসুকায় আগে থেকে মোতায়েন নৌবাহিনীর সঙ্গে যোগ দিয়েছে। ১২ জুন সিঙ্গাপুরে ট্রাম্প ও কিমের মধ্যকার শীর্ষ বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। এর অন্তত তিন সপ্তাহ আগেই এ অঞ্চলে মার্কিন রণতরী মোতায়েন করা হল। উত্তর কোরিয়া দুই সপ্তাহের মধ্যে তাদের পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষা কেন্দ্র ধ্বংসের ঘোষণা দিয়েছে।

দেশটির রাষ্ট্রীয় কোরিয়া সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি (কেসিএনএ) এক খবরে বলেছে, পুঙ্গি-রি পরমাণু পরীক্ষা কেন্দ্র আবহাওয়া পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করে ২৩ থেকে ২৫ মের মধ্যে ধ্বংস করা হবে। এ পদক্ষেপের মধ্যে রয়েছে ওই কেন্দ্রের সব গবেষণা ভবন, পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র ও নিরাপত্তা চৌকি ধ্বংস করে দেয়া।

বন্ধ করার ঘোষণা দেয়া পুঙ্গি-রি পরমাণু পরীক্ষা পিয়ংইয়ং আসলেই বন্ধ করছে কি না, তা সরেজমিন পর্যবেক্ষণ করার জন্য পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশাধিকার চেয়েছে বেশকিছু আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম। পশ্চিমা দেশগুলো ও চীনের প্রায় দুই ডজন সংবাদমাধ্যম মঙ্গলাবর পিয়ংইয়ংয়ের উদ্দেশে রওনা হয়েছে।

এগুলোর মধ্যে রয়েছে অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস (এপি), সিএনএন, সিবিএস, রাশিয়া টুডে এবং চীনের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম। এদিকে ট্রাম্প-কিমের শীর্ষ বৈঠক নিয়ে দোলাচলের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র সফর করছেন দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইন। মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। কিমের সঙ্গে ট্রাম্পের বৈঠকের মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়া সম্পর্ক এগিয়ে নেয়ার লক্ষ্যে মুন ওয়াশিংটন সফর করছেন বলে মনে করা হচ্ছে।

আগামী ১২ জুন সিঙ্গাপুরে উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উন ও ট্রাম্পের মধ্যে একটি শীর্ষ বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। আর এই বৈঠকে সামনে রেখে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স ফক্স নিউজকে পেন্স বলেছেন, ডোনাল্ড ট্রাম্পকে নিয়ে খেলতে পারবেন, এমনটি চিন্তা করে থাকলে কিম জং উনের জন্য খুবই বড় ভুল হবে।

ট্রাম্প ১২ জুনের বৈঠক থেকে সরে আসতে পারেন এমন আশঙ্কার কথাও জানান পেন্স। যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টনের মন্তব্যের পর উত্তর কোরিয়া ট্রাম্পের সঙ্গে নির্ধারিত বৈঠক বাতিলের হুমকি দিয়েছে। পরমাণু নিরস্ত্রীকরণে ‘লিবিয়া মডেল’ অনুসরণ করতে পারে বোল্টনের এমন প্রস্তাবনায় ক্ষুব্ধ হয়ে উত্তর কোরিয়া বৈঠক বাতিলের ওই সতর্কবার্তা দেয়।