পেরু-ডেনমার্কের প্রথমার্ধ ড্র তে শেষ

27

৩৬ বছরের বিরতি। ১৯৮২ সালে সর্বশেষ বিশ্বকাপে খেলেছিল পেরু। দীর্ঘ সময় পাড়ি দিয়ে পেরুভিয়ানরা আবারও উঠে এসেছে বিশ্বকাপে। সি গ্রুপে নিজেদের প্রায় সমশক্তির ইউরোপিয়ান প্রতিপক্ষ ডেনমার্কের মুখোমুখি হলো প্রথম ম্যাচেই। কিন্তু মোর্দোভিয়া স্টেডিয়ামে নিজেদের প্রথম ম্যাচের প্রথমার্ধ শেষ হলো তাদের গোলশূন্য ড্র’তে।

সি গ্রুপে দিনের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া এবং ফ্রান্স। অস্ট্রেলিয়া বলতে গেলে ঠেকিয়ে দিয়েছিল ফরাসীদের। শেষ মুহূর্তে পল পগবার গোলে ২-১ এ জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ফরাসিরা। ওই ম্যাচের পর পেরু-ডেনমার্ক ম্যাচে যে জিতবে, সেই এগিয়ে থাকবে দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠার লড়াইয়ে।

পেরু
পেদ্রো গ্যালেস, আলবার্তো রদ্রিগেজ, ক্রিশ্চিয়ান রামোস, মিগুয়েল আরাউজো ট্রাউকো, লুইস অ্যাডভিনচুলা, এডিসন ফ্লোরেজ, ইয়োশিমার ইয়োতুন, রেনাতো তাপিয়া, জেফারসন ফারফান, ক্রিশ্চিয়ান কিউয়েভা, আন্দ্রে ক্যারিওলা

ডেনমার্ক
ক্যাসপার স্মেইচেল, আন্দ্রেস ক্রিস্টেনসেন, সিমন কেইয়ার (অধিনায়ক), জেন্স স্ট্রেইগার লারসেন, হেনরিক ডালসগার্ড, ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেন, থমাস ডেলানি, উইলিয়াম ভিতভেদ কেভিস্ট, নিকোলাই জারগেনসেন, পিওনে সিস্তো, ইউসুফ ইউরাই।