চটগ্রামে রবি ও মিলভিক বাংলাদেশের যৌথ উদ্যোগে হেপাটাইটিস-ই সচেতনতা কার্যক্রম

38

বন্দর নগরীতে হঠাৎ হেপাটাইটিস-ই ছড়িয়ে পড়ায় দেশের শীর্ষ ডিজিটাল সেবা প্রদানকারী কোম্পানি রবি’র মোবাইল হেলথ সল্যুশন ‘মাইহেলথ’ মিলভিক বাংলাদেশের সাথে যৌথভাবে হেপাটাইটিস-ই বিষয়ক একটি দিনব্যাপী স্বাস্থ্য সচেতনতা কার্যক্রমের আয়োজন করেছে।

অনুষ্ঠানে হালিশহরের ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোরশেদ আকতার চৌধুরী, ২৬ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আলহাজ আবুল হাশেম, রবি’র ইস্টার্ন ক্লাস্টার মার্কেট ডিরেক্টর, এ.এস.এম. এনায়েতুর রহিম, ইস্টার্ন ক্লাস্টার মার্কেটের রিজিওনাল ম্যানেজার মোঃ আশরাফুল কবীর, ও মিলভিকের হেড অব সেলস শাহরুখ খান উপস্থিত ছিলেন।

স্থানীয় জনগণের অংশগ্রহণে দিনব্যাপী এই আয়োজনে বিনামূল্যে হেপাটাইটিস-ই এবং সাধারণ সাস্থ্যসেবা বিষয়ক পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। এর মধ্যে হেপাটাইটিস-ই আক্রান্ত কয়েকজনকে দ্রুত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের নির্দেশনা গ্রহণের পরামর্শ দেয়া হয়। কর্মশালায় হেপাটাইটিস-ই এর হাত থেকে রক্ষা পেতে যথাযথভাবে হাত ধোয়ার ওপর জোর দেয়ার পাশাপাশি এই রোগের প্রতিরোধ ও প্রতিকার সম্পর্কেও আগতদের জানানো হয়।

স্বাস্থ্য সচেতনতার পাশাপাশি অনুষ্ঠানে আগতরা রবি’র মাই হেলথ ফ্যামিলি প্যাক সম্পর্কে জানার সুযোগ পান- অসুস্থতার ক্ষেত্রে আর্থিক সুরক্ষা নিশ্চিত করাই এ প্যাকেজের উদ্দেশ্য। প্রতি মাসে মাত্র ৬০ টাকা ব্যয়ে হাসপাতালে ভর্তির ক্ষেত্রে ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত ক্যাশব্যাক অফার উপভোগ করতে পারবেন গ্রাহকরা। পাশাপাশি ২১২১৬ এ ডায়াল করে নিজের ও পরিবারের জন্য মানসম্পন্ন চিকিৎসকদের কাছ থেকে পরামর্শ গ্রহণ করতে পারবেন। এছাড়াও এ আয়োজনে মাইহেলথের বীমা সুবিধা পাওয়া গ্রাহকদের হাতে চেক হস্তান্তর করা হয়।  প্রোটেকটিভ ইসলামী লাইফ ইনস্যুরেন্সের মাধ্যমে দেওয়া এই হাসপাতাল ক্যাশব্যাক সুবিধাটিকে উপস্থিত অনেকেই চট্টগ্রামে হেপাটাইটিস-ই এর প্রাদুর্ভাবের এই সময়ে সময়োপযোগী বলে অভিমত প্রকাশ করেন।

রবি’র ইস্টার্ন ক্লাস্টার মার্কেট ডিরেক্টর, এ.এস.এম. এনায়েতুর রহিম বলেন, ডিজিটাল সার্ভিস এখন জীবনের একটি অত্যাবশ্যকীয় প্রয়োজন। রবি তার গ্রাহকদের একটি পরিপূর্ণ ডিজিটাল সার্ভিস দিতে অঙ্গীকারাবদ্ধ। মাই হেলথ তারই উদাহরণ। আমি আশা করছি চট্টগ্রামে হেপাটাইটিস-ই-এর দুর্ভাগ্যজনক প্রাদুর্ভাবের এই সময়ে এই সার্ভিসটি অত্যন্ত কার্যকরী হবে। আমি সবাইকে অনুরোধ করব আজকের কর্মসূচীর গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষণীয় বিষয়গুলো আমরা শিখে যার যার এলাকায় সবার মাঝে তা ছড়িয়ে দিতে।

মিলভিক বাংলাদেশের হেড অব সেলস শাহরুখ খান বলেন, “মাইহেলথ সার্ভিসের মূল উদ্দেশ্য সমাজের সব মানুষের কাছে স্বাস্থ্য ও আর্থিক নিরাপত্তা পৌঁছে দেয়া। সেই সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকেই আমাদের আজকের এই আয়োজন। আমরা বিশ্বাস করি আমরা স্থানীয় জনগণকে পানিবাহিত রোগগুলো সম্পর্কে সচেতন করার পাশাপাশি হঠাৎ অসুখে পড়লে তারা যাতে সহজে ডাক্তার সেবা ও আর্থিক সুরক্ষা পায়, এ ব্যাপারে আমরা তাদের পাশে দাঁড়াতে পারব।