২১ আগস্ট গ্রেনেড মামলার মদদদাতা ছিলেন বেগম খালেদা জিয়া

36

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহামুদ বলেছেন, ২১ আগস্ট গ্রেনেড মামলার মদদদাতা ছিলেন বেগম খালেদা জিয়া। তার নির্দেশনায় এ হামলা সংঘঠিত হয়েছে। এ দায়ভার থেকে তিনি কোনোভাবেই এড়িয়ে যেতে পারেন না।

সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজিত এক আালোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার সময় সরকার প্রধান ছিলেন বেগম খালেদা জিয়া। তার নির্দেশ ছাড়া এই হামলা হতে পারে না। এই সঙ্গে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী জড়িত রয়েছে। রাজনৈতিক জনসভা হলে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী নিরাপত্তা নিশ্চিত করার কথা থাকলেও সেখানে তারা উপস্থিত ছিল না। পরিকল্পিতভাবেই এ হামলা ঘটানো হয়।

বিএনপিকে নির্বাচনে অংশগ্রহণের আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, নির্বাচনে আসুন, দেখুন জনগণ কাদের রায় দেয়। নির্বাচনের মাঠেই প্রমাণ হবে দেশের মানুষ কাদের সরকার হিসেবে দেখতে চায়।

সভায় খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেন, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামালায় জিয়া পরিবারের সদস্যরা জড়িত। জিয়া যেমন পরিকল্পিতভাবে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছিলেন, ঠিক তেমনি খালেদা জিয়াও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গ্রেনেড হামলার মধ্যদিয়ে হত্যার পরিকল্পনা করেছিলেন।

তিনি বলেন, বিএনপির হামলা-হত্যা আর সহিংস কর্মকাণ্ডের কারণে দেশের মানুষ তাদের বর্জন করেছে। এ কারণে আগামী নির্বাচনে দাঁড়ানোর মতো মাজায় শক্তি ও সাংগঠনিক জোর হারিয়ে ফেলেছে। এখন নানা ছলচাতুরি করে নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করার পথ অবলম্বন করছে তারা।

অনুষ্ঠানে আয়োজক সংগঠনের উপদেষ্টা লায়ন চিত্তরঞ্জন দাসের সভাপত্বিতে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মোল্লা জালাল, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু জাফর সূর্য, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।